32.8 C
Rajshahi
Thursday, November 26, 2020
Home সম্পাদকীয় রেলের উন্নয়নে সুপরিকল্পিত পদক্ষেপ নিন

রেলের উন্নয়নে সুপরিকল্পিত পদক্ষেপ নিন

দেশে ট্রেন লাইনচ্যুত হওয়ার ঘটনা বাড়ছে। চলতি মাসেই কয়েকটি লাইনচ্যুতির ঘটনা ঘটেছে। বাংলাদেশ রেলওয়ের উন্নয়নের পেছনে প্রতিবছর বিপুল অঙ্কের অর্থ ব্যয় করা হয়। তারপরও এসব দুর্ঘটনা বন্ধ হচ্ছে না। এছাড়া দেশে ট্রেনের গতি যেমন বাড়েনি, তেমনি বাড়েনি যাত্রীসেবার মান। ফলে স্বভাবতই প্রশ্ন উঠেছে রেলের উন্নয়ন পরিকল্পনার মান নিয়ে। কোনো পদক্ষেপের পেছনে যদি সুষ্ঠু পরিকল্পনা না থাকে, তাহলে তাতে অর্থেরই কেবল অপচয় হয় না, এর সুফলও পায় না জনগণ। বাংলাদেশ রেলওয়ের হয়েছে সেই দশা। বর্তমানে রেলওয়েতে প্রায় ১ লাখ ৪২ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে ৩৯টি উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ চলছে। এর আগে গত এক যুগে ২১ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে বাস্তবায়িত হয়েছে ৭৯টি উন্নয়ন প্রকল্প। কিন্তু এর পরও রেলের গতি তো বাড়েইনি, বরং আগের চেয়ে কমেছে। এর কারণ খতিয়ে দেখা যায়, যেসব খাতে প্রকল্প নেয়া হয়েছে সেগুলো মূলত কম গুরুত্বপূর্ণ। যেমন- নতুন করে রেলপথ নির্মাণ, এমনকি সদ্য সমাপ্ত রেলপথ ভেঙে নতুনভাবে নির্মাণ, মিটারগেজকে ডুয়েলগেজে রূপান্তর, ব্রডগেজ লাইন বসানো, ডেমো ট্রেন ক্রয় ইত্যাদি। অথচ রেলের পুরনো জরাজীর্ণ লাইন, ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজের কোনো সংস্কার হচ্ছে না। রেলপথে রয়েছে পাথরের স্বল্পতা। ফলে ট্রেনের লাইনচ্যুতির ঘটনা ঘটছে অহরহই। এদিকে যথাযথ দৃষ্টি দেয়া হচ্ছে না।
জানা যায়, বিদ্যমান ২৯৫৫ কিলোমিটার রেলপথের মধ্যে আড়াই হাজার কিলোমিটারই জরাজীর্ণ এবং ৮০ শতাংশ রেলব্রিজ ঝুঁকিপূর্ণ। ফলে ট্রেন চালাতে হয় সাবধানতার সঙ্গে। স্বভাবতই এতে ট্রেনের গতি কমেছে। অর্থাৎ চলমান রেলপথ রক্ষণাবেক্ষণ না করে কম গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প বাস্তবায়ন করায় রেলব্যবস্থার কার্যত কোনো উন্নতি হচ্ছে না। বস্তুত বিপুল অঙ্কের অর্থের উন্নয়ন প্রকল্পের ভারে ধুঁকছে রেল। সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা ছাড়া প্রকল্প নেয়ায় সৃষ্টি হয়েছে এ পরিস্থিতির। তাছাড়া প্রকল্প ঘিরে পদে পদে রয়েছে অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ। জানা যায়, রেলের অধিকাংশ উন্নয়ন প্রকল্পেই অপারেশন দফতরের সংশ্লিষ্টদের সম্পৃক্ত করা হয়নি। অথচ এ দফতরটি যাত্রীদের সেবা-নিরাপত্তা নিশ্চিত করার সঙ্গে সম্পর্কিত। অর্থাৎ দেখা যাচ্ছে, প্রধানত অপরিকল্পনার কারণে রেলের প্রকৃত উন্নয়ন হচ্ছে না। কমছে না লোকসান। এ অবস্থার পরিবর্তন জরুরি হয়ে পড়েছে। সড়কের চেয়ে রেলে দুর্ঘটনা কম হওয়ায় সাধারণ মানুষ একসময় রেল ভ্রমণেই স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করত বেশি। এখন রেলের বগি ঘন ঘন লাইনচ্যুত হওয়ায় এবং ট্রেনে সেবার মান কমে যাওয়ায় অনেক যাত্রী রেল ভ্রমণ পরিহার করছে। বস্তুত পুরনো ইঞ্জিন, জরাজীর্ণ বগি, সংস্কারবিহীন রেললাইনের কারণে রেল ব্যবস্থার জনপ্রিয়তা কমেছে। পাশাপাশি অনিয়ম-অব্যবস্থাপনাও এজন্য দায়ী। রেলকে যাত্রীদের কাছে জনপ্রিয় করে তুলতে হলে এ খাতের প্রকৃত উন্নয়ন ঘটাতে হবে। কর্তৃপক্ষকে বুঝতে হবে, কেবল বড় বড় প্রকল্প নিয়ে রেলকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিণত করা সম্ভব নয়। প্রকল্পের সুফল জনগণ কতটা পাচ্ছে সেটাই বড় বিষয়। রেলের বিরুদ্ধে দুর্নীতির নানা অভিযোগ রয়েছে। এগুলো শক্ত হাতে দমন করতে হবে। দেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের নিরাপদ ও সাশ্রয়ী ভ্রমণ নিশ্চিত করতে রেলের প্রকৃত উন্নয়নে সরকারকে সুপরিকল্পিতভাবে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

মেসিকে ছাড়াও দুর্দান্ত বার্সেলোনা, শেষ ষোলো নিশ্চিত

এফএনএস স্পোর্টস: দুই ম্যাচ হাতে রেখেইে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ১৬ নিশ্চিত করেছে বার্সেলোনা। মার্টিন ব্রেথওয়েটের জোড়া গোলে গতকাল ডায়নামো কিয়েভকে ৪-০ গোলে...

মোরাতার শেষ মুহূর্তের গোলে জুভেন্টাসের জয়

এফএনএস স্পোর্টস: আলভারো মোরাতার শেষ মুহূর্তের গোলে হাঙ্গেরিয়ান ক্লাব ফেরেনভারোসকে ২-১ গোলে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ১৬ নিশ্চিত করেছে জুুেভন্টাস। মঙ্গলবার...

পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাজশাহী মহানগরের পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন হওয়ায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভাপতি জননেত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনা এমপি ও সাধারণ...

পররাষ্ট্রমন্ত্রী করোনায় আক্রান্ত

এফএনএস: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর গত মঙ্গলবার রাতে তার ফলাফল পজিটিভ আসে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের...

Recent Comments