32.8 C
Rajshahi
Thursday, June 24, 2021
Home সারাদেশ চারঘাটে আমন ধান কাটার প্রস্তুতি নিচ্ছেন কৃষকরা

চারঘাটে আমন ধান কাটার প্রস্তুতি নিচ্ছেন কৃষকরা

চারঘাট প্রতিনিধি: রাজশাহীর চারঘাটের মাঠে মাঠে এখন হাওয়ায় দুলছে আমনের সোনালি শীষ। সবুজের মধ্যে সোনালি ধানের শীষে রঙ্গিন হয়ে উঠছে কৃষকের স্বপ্ন। মাঠজুড়ে ক্রমেই পেকে সোনালি বর্ণ ধারণ করছে আমন ধান। এরইমধ্যে আগাম জাতের কিছু কিছু ধান কাটা শুরু হয়েছে। আগামী দু’সপ্তাহের মধ্যে পুরোদমে আমন কাটার প্রস্তুতি নিচ্ছেন চারঘাট উপজেলার কৃষকরা।
প্রতিবছর হেমন্তের এই সময়ে চারঘাট উপজেলার কৃষকরা সোনালি ধান কাটা শুরু করেন। এবারও ব্যতিক্রম হয়নি। আগাম জাতের ধান কাটা শুরু হয়েছে এরই মধ্যে। অগ্রহায়ণে পুরোদমে আমন কাটা-মাড়াই শুরু করবেন চারঘাটের কৃষকরা। চলতি মৌসুমে সময়মতো পানি ও অনুকূল আবহাওয়া থাকায় অন্য সব বছরের চেয়ে আমন চাষাবাদ ভাল হয়েছে। আশানুরূপ ফলনের চেয়েও বেশি ফলনের সম্ভাবনাও রয়েছে। কৃষকরা এখন সোনালি ধানের হাওয়ায় দোলানো শীষের মাঝেই বুনছে রঙ্গিন স্বপ্ন।
উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরে তথ্য মতে, চলতি মৌসুমে উপজেলায় আমনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৪ হাজার ৫০ হেক্টর জমিতে। এর মধ্যে ৪ হাজার ৬০ হেক্টর জমিতে আমনের আবাদ হয়েছে। আমনের ফলনও এবার ভাল হয়েছে।
উপজেলার নিমপাড়া ইউপির কৈ ডাঙা গ্রামের কৃষক আব্দুল কাদের জানান, চলতি মৌসুমে তিনি ৫ বিঘাতে আমন চাষাবাদ করেছেন। অন্যসব কৃষকের চেয়ে একটু অগ্রিম আমন রোপণ করেছিলেন তিনি। আগাম প্রস্তুতি এবং কীটনাশক ব্যবহারের ফলে পোকার তেমন কোন আক্রমণ হয়নি। তাই এবার খুব ভালো ফলনের আশা করছেন।
উপজেলার শলুয়া ইউপির বামনদিঘী গ্রামের কামরুল ইসলাম ৩ বিঘা জমিতে আগাম জাতের আমন ধান চাষ করেছিলেন। ইতোমধ্যে কাটাও হয়ে গেছে। তিনি মোট ১২ বিঘা জমিতে আমন চাষ করেছেন। উভয় কৃষকের বক্তব্য এবার ধানের গ্রোথ খুব ভালো।
সদর ইউনিয়নের পরানপুর গ্রামের সিরাজুল ইসলাম জানান, এবার বিলের তলা পর্যন্ত আমন চাষ হয়েছে। সময় মতো বৃষ্টি হওয়ায় অন্যান্য বছরের তুলনায় এ বছর অনেক ভালো আমন ধান চাষ হয়েছে। এবার সময় মতো বৃষ্টির কারণে কোন প্রকার বিলাই ও পোকা নেই। এ কারণে কৃষকের মাঝে বেশ আনন্দের বহিঃপ্রকাশ লক্ষ্য করা যাচ্ছে।
জানা গেছে, এবার সরকার ২৬ টাকা কেজি দরে আমন ধান ক্রয় করবে। ৭ নভেম্বর থেকে আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত ধান ক্রয় চলবে।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ লুৎফুন নাহার বলেন, এ বছর ৪ হাজার ৫০ হেক্টর জমিতে আমন ধান আবাদ হয়েছে। আমন ধানকে রোগ ও পোকার আক্রমণ থেকে রক্ষা করার জন্য উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাগণ সার্বক্ষণিক মাঠে থেকে কৃষকদের পরামর্শ প্রদান করছেন।
তিনি বলেন, প্রতিদিন সন্ধ্যায় পোকার উপস্থিতি পর্যবেক্ষণ করার জন্য বিভিন্ন মাঠে আলোক ফাঁদ স্থাপন করা হচ্ছে। এছাড়াও কৃষকগণের সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে দলীয় আলোচনা, উঠান বৈঠক, লিফলেট বিতরণ প্রভৃতি কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। আগামী এক সপ্তাহ পর থেকে পুরো দমে ধান কাটা শুরু হবে। মাঠের অবস্থা দেখে আশা করা যায় ফলন লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

পবায় মডেল পোল্ট্রি খামার প্রতিষ্ঠার জন্য মতবিনিময় সভা

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহীর পবা উপজেলায় কনজুমারস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) ও প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর, পবা, রাজশাহী এর যৌথ আয়োজনে মডেল খামারী নির্বাচন বিষয়ক...

জনস্বাস্থ্য সুরক্ষায় শীঘ্রই আসছে নীতিমালা

নিজস্ব প্রতিবেদক: খাদ্যে ট্রান্সফ্যাট একটি অযাচিত উপাদান এবং তা নিত্য খাদ্য দ্রব্যের সাথে গ্রহণের ফলে যে সকল স্বাস্থ্যক্ষতি ও মৃত্যু সংঘটিত হচ্ছে...

বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ টি-২০ ক্রিকেট চ্যাম্পিয়ন ফাইটার রাজশাহী

নিজস্ব প্রতিবেদক: কুমারপাড়া রাইডার্স কে ১৯ রানে পরাজিত করে রাঙ্গাপরী ১ম বঙ্গবন্ধু টি-২০ গো- কাপ ক্রিকেট প্রতিযোগিতার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে...

ক্ষুধা-দারিদ্র্যের বিরুদ্ধে জয়ী হলেই উন্নয়নের মহাসড়কে যাত্রার সাহস আসে : প্রধানমন্ত্রী

এফএনএস: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কৃষি সমৃদ্ধির উৎকর্ষে খাদ্য নিরাপত্তার স্বস্তি আসে। ক্ষুধা ও দারিদ্র্যের বিরুদ্ধে সংগ্রামে জয়ী হলেই কেবল উন্নয়নের মহাসড়কে...

Recent Comments