32.8 C
Rajshahi
Friday, September 17, 2021
Home সারাদেশ পুঠিয়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অধিকাংশ স্টাফ কোয়াটার ফাঁকা

পুঠিয়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অধিকাংশ স্টাফ কোয়াটার ফাঁকা

পুঠিয়া প্রতিনিধিঃ পুঠিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অধিকাংশ স্টাফ কোয়াটার ফাঁকা পড়ে রয়েছে। দীর্ঘদিন থেকে এসব কোয়াটারগুলো পরিত্যক্ত অবস্থায় থাকায় ব্যবহারের অযোগ্য হয়ে পড়ছে। গত দুই যুগের বেশী সময় ধরে এ অবস্থা চলছে। সরজমিনে খোঁজনিয়ে দেখাগেছে, পুঠিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পিছনে স্টাফদের থাকার সুবিদার্থে সরকার মোট ৬টি কোয়াটার নির্মান করেন। এর মধ্যে প্রথম শ্রেণীর কর্মকর্তা ও ডাক্তারদের জন্য স্টাফ কোয়ারটার রয়েছে ২টি, দ্বিতীয় শ্রেণীর কর্মচারীদের জন্য স্টাফ কোয়ারটার ১টি, তৃতীয় শ্রেণীর কর্মচারীদের জন্য স্টাফ কোয়ারটার ১টি এবং চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারীদের জন্য স্টাফ কোয়ারটার রয়েছে ২টি। প্রথম শ্রেণীর কেরায়াটারে ১২ জনের মধ্যে থাকেন ৩জন, দ্বিতীয় শ্রেণীর কোয়াটারে ৬ জনের মধ্যে থাকেন ৩জন, তৃতীয় শ্রেণীর কোয়াটারে ৬ জনের মধ্যে থাকেন ১জন এবং চতুর্থ শ্রেণীর কোয়াটারে একটিতে ৬জনের মধ্যে থাকেন ২জন বাকি একটি কোয়াটার দীর্ঘ দিন থেকে কেউ বসবাস না করায় বসবাসের অযোগ্য হওয়া সংস্কারের জন্য প্রক্রিয়াধিন কয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অধিকাংশ স্টাফ স্থানীয় হওয়ার কারণে স্টাফ কোয়াটারগুলো ফাঁকা রয়েছে। এসব স্টাফরা তাদের বাড়ি থেকে অফিস করেন বা যাদের বাড়ি উপজেলার বাহিরে বা অন্যত্র তাদের বেশির ভাগ বেসরকারী বাড়িতে ভাড়া থাকেন বলে জানাগেছে। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মরত অনেকেই জানান, সরকারের সিদ্ধান্ত মতে স্টাফ কোয়াটারের থাকলে তাদের হাউস রেন্টের সবগুলো টাকাই কেটে নেওয়া হয়। অর্থাৎ ব্যাসিকের ৪০ থেকে ৪৫ শতাংশ বাড়ি ভাড়া হিসেবে দিতে হয়। অথচ উপজেলা সদরের একটি বাড়ি ভাড়া নিতে তাদের কর্তনের অর্ধেক টাকায় পাওয়া যায়। একারণে অনেকেই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্টাফ কোয়াটারে না থেকে ভাড়া বাসায় থাকেন। এতে প্রতি বছর সরকার ১০ থেকে ১৫ লক্ষ টাকা রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডাক্তার নাজমা আক্তার জানান, ডাক্তারসহ অধিকাংশ স্টাফ রাজশাহী বা আশে পাশের জেলা শহর থেকে যাতায়াত করেন। এছাড়াও অনেক স্থানীয় স্টাফ থাকায় তারা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্টাফ কোয়াটারে থাকেন না। স্টাফ কোয়াটারে থাকার কোন বাধ্যবাধকতা নাই এবং কোয়াটারে থাকলে ব্যাসিকের একটা বড় অংশ হাউজ রেন্ট হিসেবে কেটে নেওয়া হয়। এ কারণে স্টাফ কোয়াটারগুলো ফাঁকা রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

পবায় মডেল পোল্ট্রি খামার প্রতিষ্ঠার জন্য মতবিনিময় সভা

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহীর পবা উপজেলায় কনজুমারস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) ও প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর, পবা, রাজশাহী এর যৌথ আয়োজনে মডেল খামারী নির্বাচন বিষয়ক...

জনস্বাস্থ্য সুরক্ষায় শীঘ্রই আসছে নীতিমালা

নিজস্ব প্রতিবেদক: খাদ্যে ট্রান্সফ্যাট একটি অযাচিত উপাদান এবং তা নিত্য খাদ্য দ্রব্যের সাথে গ্রহণের ফলে যে সকল স্বাস্থ্যক্ষতি ও মৃত্যু সংঘটিত হচ্ছে...

বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ টি-২০ ক্রিকেট চ্যাম্পিয়ন ফাইটার রাজশাহী

নিজস্ব প্রতিবেদক: কুমারপাড়া রাইডার্স কে ১৯ রানে পরাজিত করে রাঙ্গাপরী ১ম বঙ্গবন্ধু টি-২০ গো- কাপ ক্রিকেট প্রতিযোগিতার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে...

ক্ষুধা-দারিদ্র্যের বিরুদ্ধে জয়ী হলেই উন্নয়নের মহাসড়কে যাত্রার সাহস আসে : প্রধানমন্ত্রী

এফএনএস: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কৃষি সমৃদ্ধির উৎকর্ষে খাদ্য নিরাপত্তার স্বস্তি আসে। ক্ষুধা ও দারিদ্র্যের বিরুদ্ধে সংগ্রামে জয়ী হলেই কেবল উন্নয়নের মহাসড়কে...

Recent Comments